রিমি ও একটা বর্ষাস্নাত দিন

লিখেছেন Tamim Hasan :

ভোর বেলা সূর্য আকাশে ওঠার পর থেকেই হালকা হালকা বৃষ্টি আরম্ভ হয়েছে। শ্রাবণ মাস বৃষ্টি হবে না এটা কী হয়! অজস্র ছোট ছোট বৃষ্টি অঝর ধারায় মেঘ হতে প্রকৃতির মাঝে বর্ষিত হচ্ছে।রিমির স্কুল বন্ধ, কোরবানির ঈদের ছুটি চলছে। রিমি সকালে ঘুম থেকে জেগে দেখল বাসায় তার বাবা আর মা নেই! হয়তো কোথাও গেছে রিমি তার বড় বোন
নুইসার রুমের নিকট গিয়ে দেখল নুইসা কানে সাদা রঙের একটা এয়ারফোন গুজে গান শুনছে।রিমি বলল আপু বাবা -মা কোথায় গেছে?
নুইসা : মা একটু অনু খালার বাসায় গেছে। তোকে নিতে চেয়েছিলো কিন্তু তুই তো ঘুমিয়ে ছিলি।আর বাবা শাকির চাচাদের সাথে গরুর হাটে গরু কিনতে বেরিয়েছে।এবার যা গিয়ে নাস্তা করে বসে থাক গান শোনায় ডিসট্রাব করিস নাহ!!
রিমি ক্লাস ফাইভে পড়ে আর নুইসা এবার কলেজে।
তাই দুই বোনের সাথে গল্পগুজব করার রিলেশন ওতোটা পাকা নয়। যে যার মতো চলে।

রিমি তার রুমের সামনে দোতালার বেলকুনিতে মেঝেতে বসে হাতের ধারে আর্ট খাতা আর রঙের বাক্সটা নিয়ে নীল আকাশ আর মেঘের দিকে অপলক দৃষ্টিতে চেয়ে চেয়ে কী একটা ভাবছে।কিছুক্ষণ পর সাদা খাতায় রঙের মিশ্রনে আকাশে মেঘের মাঝে বৃষ্টি চলছে এমন একখানা দারুন দৃশ্য অংকন করে ফেলল।সত্যি বলতে রিমির ছোট দুটি হাতে জাদু আছে তা না হলে এত সুন্দর ছবি কীভাবে সে আকেঁ। ছবি আকাঁর প্রতি রিমির কৌতূহলটা অনেক বেশি।এভাবেই সকাল গড়িয়ে দুপুর চলে এলো। রিমির বাবা রেস্তঁরা থেকে খিচুরি আর চিকেন ফ্রাই নিয়ে এসেছে কারন রান্না-বান্না ঘরে আজ হয়নি রিমির মায়ের ফিরতে সন্ধ্যা হবে।
দুই বোন ও বাবা খাওয়াদাওয়া সেরে ফেলল।
নুইসা তার রুমে গিয়ে শুয়ে পড়ল। আর রিমি ছাতা নিয়ে ছাদে চলে এলো, ছাদে রিমির একটা ছোট ফুল বাগান আছে।সেখানে দাড়িয়ে রিমি বাগানটা দেখছিলো।এভাবেই রিমির দিনটা চলে যাচ্ছে।
রিমি এদানিং বাসায় একা হয়ে গেছে তার এখন কোনো খেলার সাথী নেই।কিছুদিন আগেও রিমির মামাতো বোন মুন তাদের বাসায় ছিলো এখন ঈদের জন্য গ্রামের বাড়িতে চলে গেছে। মুনও ফাইভে পড়ে রিমিদের বাসায় থেকে।
খেলাধুলা, পড়াশুনা সবটাই রিমি মুনের সাথে করে।
তাই মুনের অনুপস্থিতিতে রিমির এখন এই সিচুয়েশন।

– তামিম হাসান, ৮ ই আগস্ট, ২০১৯ খুলনা, বাংলাদেশ।

আমরা সাহিত্য চর্চাও করবো না, লেখকও তৈরি করবো না, সম্পাদনাও করবো না, কেবল প্রকাশ করবো স্বপ্ন আর সৌহার্দ্য।

আপনার লেখা আজেই পাঠিয়ে দিন শুভ্র কাগজে। এই কাগজ প্রকাশ করবে আপনার প্রীতি।