স্মৃতি কাব্য
~ তামিম হাসান তোমার কংক্রিটের শহরে এসেছি মেঘের পিঠে উড়ে; রৌদ্রতাপে আমার শরীর গেছে পুড়ে, ভালোবাসার গভীর মায়া জুড়ে আমাদের প্রেম হয়ে আছে অদ্ভুতুড়ে । মাঝে মাঝে তোমার গান গাওয়া সুরে তুমি আমায় দিও ভালোবাসায় মুড়ে। তোমার করিডোরে... আরও পড়ুন
আমার স্বপ্নকন্যা বারবার ব্যর্থ হয়েও মন কিছুতেই মানছে না থেমে যেতে, কলম চাইছে না ছেড়ে দিই, খাতা ডাকছে বারংবার, তোমাকে নিয়ে কিছু লেখি এটা যেন আমার থেকে বেশি চাচ্ছে আমার চারপাশ। অথচ দেখো! আমি তোমার নামটাই জানি না।... আরও পড়ুন
রোজ একি স্বপ্ন, সেই স্বপ্নযা সমস্ত দিনের শেষে দেখি।যখন স্বপ্ন দেখি সেই স্বপ্নসাদামাটা নিতান্তই পৌরণিক স্বপ্নের মতো ।যতবার দেখি ততবার একগুঁয়ে নয়নির্জন রাত্রির স্নিগ্ধ বাতাসের মতো । তুমি আমি জ্যোৎস্না আর দারুচিনিদ্বীপ।পৃথিবীর সহস্র বছরের গ্রাম গঞ্জ জনপদলোকালয় কোলাহল... আরও পড়ুন
–রায়হান ফাইয একদা ফাগুন কালে আঁকাবাঁকা পথ ফেলে সহজে মাড়িয়ে গেলে মনের উঠান— সেদিনের পর থেকে নিজেকে অচেনা লাগে অযত্নে পড়ে থাকে স্বপ্ন শিথান । উদলা খোপার ভাঁজে যে ফুল রেখেছো গুজে সে ফুলের রঙ যেন তোমার চোয়াল—... আরও পড়ুন
– তামিম হাসান নীল আকাশের নিচে বিশাল এলাকা বিস্তৃত জায়গা জুড়ে শুধু নীল সমুদ্র। নিশ্চুপ পরিবেশে সন্ধ্যা হওয়ার সাথে প্রকৃতি হয়ে গেছে বড় অসহায়। নির্জন সমুদ্র সৈকতে শুধু সমুদ্রের সচ্ছ জলের স্রোতের শব্দ। সমুদ্র আঙিনায় নিঃশব্দ গাছ গুলো... আরও পড়ুন
– আসআদ ইবনে শাহীন প্রিয়া! তোমার ওই আলতা মাখা পা গোলাপী ওই ঠোঁটজোড়া তোমার হাসিতে টোল পড়া ওই গাল তোমার পরনে নীল রঙয়ের সিলকী শাড়ী তোমার পায়ের ওই ঝনঝনানী তোড়া তোমার হাতের ওই লাল রেশমী চুড়ি তোমার চুলে... আরও পড়ুন
–রায়হান ফাইয কিযে অলখিতে নারীমন জয়ের উত্তাল বয় প্রাণে তার কিঞ্চিত যদি ধরণীতে হানে; হবে সাইক্লোন ঝড় মলাটবদ্ধ রমনীরা কেশে ডাকে পড়ে যাই মহা মুশকিল— বিপাকে বিব্রত দেখে পথিক লোকেরা ভাবে – ছেলেটা লাজুক । মেয়েতে ডর ।... আরও পড়ুন
– আল রাজী মামুন অনাবৃত অধমাঙ্গে নিদাঘ নিরালায় ধূ ধূ মরু ‘পরে শতকোটি পদচারণায় ; প্রসারিত দিগ্বলয়ে তৃষিত লোচনে মরীচিকা নেত্রপাতে পথিকের মানসক্ষিতিতে যাহা পৌরনিক অথচ নিকষিত যেথা আনন্দ করে উদ্বেলিত তুমি মম সেই বেদনাময় হর্ষ । সেথা... আরও পড়ুন
– আমান উদ্দিন কোন এক অবসন্ন দিনে আমাদের গধূলী সময়; অনাগত শব্দ খুঁজিবারে নীলাভ অন্তরীক্ষ তলে মৃদু দুরু স্বরে এক হয়েছি আমরা। একজোড়া চোখ; কি চোখ তোমার! শান্ত, কোমল অথচ চঞ্চল, পৃথিবীর সব চোখ নিভে গেলেও তোমার এক... আরও পড়ুন
ভীষণ গরম, জানালার থাইগ্লাস খুলে দিয়েছি, পর্দাগুলোও টেনে দিয়েছি একপাশে।চোখ দুটো ব্যাথা করছে ।মনে হয়,খুব ঘুমের প্রয়োজন আমার।তারপর বিছানা গুছিয়ে চোখ বন্ধ করলাম।কিন্তু খটকা লাগলো, মনে হলো কেউ আমার চোখের উপর টর্চ লাইট ফেলেছে। চোখ খুলতেই দেখি কিছুই... আরও পড়ুন
অচেনা পথে হাঁটি যখন মনে পড়ে চেনা সেই দিনগুলো হারিয়ে যখন সপ্নভুবন খুঁজে ফিরি সেই স্মৃতিগুলো মিছে এ সাধনা জানি তবুও আশায় থাকে মনখুঁজেছি আজো তবু জগৎ জুড়িয়া মন বলে, পেয়ে যাবে ঠিক তখন সপ্নে যখন সপ্ন বুনি মিছে মিছে সব ভাবনায় কেটে যায় দিন... আরও পড়ুন
শুভ্র কাগজ
অভিলাষ মোর তব অঙ্গরূহ আলিঙ্গন; সমীরণ যদি করে বিচরণ। সায়াহ্ন হোক বা নিশাগম আমি নেব তা নেব স্বয়ং। তুমি বারণ কর বা নাই কর আমি ছুঁয়ে দেব তব সুরেলা সুর, ছুঁয়ে দেব তব তুর; করব আলিঙ্গন তব অমৃত... আরও পড়ুন
মানব গল্প
মাটির-গন্ধ-নামে by Shuvro kagoj
জীবনের অসমাপ্ত উপন্যাসের পাণ্ডুলিপিটি বহুদিন বাদে মেলা হলো আবার৷ একটি অখণ্ড অবসর ধরে সেই কবে হারিয়েছিলেম এই কলম আর পৃষ্ঠার সম্ভোগ থেকে। আজ বহু নিশীথের পর এক টুকরো স্মৃতির পাতা ধরেই বুঝি ফিরে এলাম অতীতের খেয়াঘাটে৷ চূর্ণ চূর্ণ স্মৃতি গুড়ো... আরও পড়ুন
এই-মাটি,-এই-হাওয়ার-স্পর্শে-|-ai-mati,-ai-hawyar-sporshe-by-sonoyar-rasel--shuvro-kagoj
অনেক শতাব্দী আগে অস্তাচলের কাছে যুলকারনাইন সূর্যকে পঙ্কিল জলাশয়ে ডুবতে দেখেছিলেন। সূর্য— যা প্রতিদিন পশ্চিমে অস্ত যায় আর সিজদায় রত হয়ে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করতে থাকে পরদিন আবার উদিত হওয়ার অনুমতির জন্য এবং একদিন যাকে আর অনুমতি দেওয়া হবে না,... আরও পড়ুন
যে শহর জয়ন্তির- Shuvro kagoj
জয়ন্তির সারাদিনে যতবার ঐ বিদঘুটে ঘটনাটি মনে হয়েছে, ততবারই তার বমি বমি ভাব হয়েছে, কিন্তু গলা পর্যন্ত এসেও শেষে আর হয় নি। সে কাউকে কিছু জানায়নি এ ব্যাপারে। না বাবাকে, না মাকে। কারণ বমি হওয়ার কারণটি খোলাখোলি কাউকে জানাতে গেলে... আরও পড়ুন
সময়ের বিপরীত গল্প- Shuvro kagoj
পাখির কূজন মানুষের কানকে উদ্বেলিত করে। গাছের সবুজ ছায়া শরীর মননকে দেয় নির্মলতা। পিচঢালা রাস্তার ছোট ছোট সুরকির মতো নুড়ি পাথরগুলো জুতার সোলের সাথে বাড়ি খেতে খেতে খড়খড় আওয়াজ করে অস্তিত্ব জানান দেয় – আমরা বেঁচে আছি এখনো। পদদলিত হওয়ার... আরও পড়ুন
অফিস এ গিয়েছি আজ মাসখানেক পর। মা মারা যাবার পর এই প্রথম অফিসে গেলাম। সাকিব সাহেব আমার হয়ে বিগত এক মাসের কার্যক্রম সামলে নিয়েছেন। রাফিজ সাহেব বলছিলেন গতো একমাসের অফিসে ঘটে যাওয়া ছোট থেকে বড় গল্পগুলো। সেই অপ্রয়োজনের গল্পগুলির মাঝে... আরও পড়ুন
সন তারিখ দিয়ে কাজ নেই। তবে বেশি দিন আগের কথা নয়। আবার কম সময়ও পার হয়নি। আমি তখন টুকটাক বই পড়ি।মাদরাসায় থাকি। বোডিং বা আবাসিক যেটাই বলেন সেটাই। যোহর পর্যন্ত ক্লাস। যোহরের পরেও একটা ক্লাস হতো। তারপর তাকরার আসর পর্যন্ত।... আরও পড়ুন
পলিনের দাদীর নাম খোদেজা বেগম। লোলচর্ম, অস্থিসার, বিরল-দন্তী এই মহিলার বয়স ঠিক কত পলিন তাজানে না। খোদেজা বেগমের কাছে অনেক বার তার জন্মসাল জানতে চেয়েও সদুত্তর পায়নি। জিজ্ঞাস করলেইশুধু বলে, ‘কিবায় কমু বইন? আমগো সুমায় কি তগর মত অত সন... আরও পড়ুন
০১. বিরিয়ানীর সম্রাট দুদিন ধরে সম্রাট বন্দি পড়ে আছে খিলগাঁওয়ের কাছাকাছি পরিত্যক্ত একটি রেলবগিতে।সেদিন পুলিশের লাঠিচার্জে লেগেছে খুব।কনুই ভেঙে রক্তারক্তি। এরপর থেকেই এই অবস্থা।জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ঘুমোচ্ছে বেঘোরে।দুদিন পর আজ জ্বরের আগ্রাসন যখন কিছুটা স্তিমিত তখন সম্রাট বুঝতে পারলো খিদেয়... আরও পড়ুন
লম্ফঝম্ফ সকাল- Shuvro Kagoj
প্রতিদিন আম্মুর বকুনিঝকুনি খেয়ে ঘুম ভেঙ্গে চোখ কচলে জন্মদিনে বাবার দেওয়া কাঁচের ঘড়িটায় দেখতাম স্কুলবাস আসার আর মাত্র ৩০ মিনিট বাকি। কিন্তু আজ কিছু একটা ভাঙ্গার শব্দে ঘুমটা একটু বেশি আগেই ভেঙে গেলো।চোখ মেলে য দেখলাম তাতে একজন সুস্থ মস্তিষ্কের... আরও পড়ুন
পড়তে থাকি
Nijeke Shopno dekhte daw- Shuvro kagoj
মুলা ঝুলানো ব্যাপারটার সাথে আমরা সবাই পরিচিত।খরগোশের সামনে মুলো বেধে দেয়া হয়,খরগোশ সারাদিন ছুটবে কিন্তু মুলো ধরতে পারবে না।আমাদের সাথেও জন্মের পর থেকেই “মুলা ঝুলানো খেলা” খেলা হচ্ছে।পুরো ছাত্রজীবন এই খেলা চলে।এই খেলার শুরু হয় শৈশবে মা বাবার “লেখাপড়া করে... আরও পড়ুন
Ahsan Habib Utsho- Shuvro kagoj
মেরুদন্ড নিয়ে বোধ হয় আর খাড়া হয়ে দাঁড়াতে পারবোনা! রক্তাক্ত বাস্তবের সহবাসেই আজকাল কাটে সকাল সন্ধ্যা রাত্রি জাগরণ! একটার পর একটা আঘাত ঠিক একই স্থানে বেমালুম আঘাত করেই চলেছে! আঘাতের ছোবলে ভেঙে চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে গেলো! বেলুয়াড়ী চুড়ির মতো ভেঙে টুকরো... আরও পড়ুন
অর্থনীতির আদ্যোপান্ত- Shuvro Kagoj
আমার বন্ধু রকিবকে সেদিন বললাম ‘জানিস, ইকোনোমিক্সের জনক এরিস্টটল। উনি…’ আমার কথা শেষ করার আগেই রকিব তো রেগেমেগেই শেষ। ইচ্ছেমতোন বকাঝকা করলো আমাকে। কথা শুনালো একগাদা। আমি নিশ্চিত যে, আমি যদি এই লেখার শুরুতে রকিবের কথা না বলে সরাসরি লেখতাম... আরও পড়ুন
অনুভূতি কিংবা অভ্যাস- Shuvro kagoj
রাত৷ বারোটা তিন৷ একশটা বকুল-মালা সায়েমের হাতে৷ দাঁড়িয়ে আছে রিমার বাসার সামনে৷ সায়েম প্রায়ই এমন করে৷ ফোন দিয়ে রিমাকে নিচে ডাকে৷ ঘুম ঘুম চোখে নেমে আসে রিমা৷ বকুল রিমার খুব পছন্দ৷ এতগুলো মালা দেখে রিমা খুশিতে লাফাতে চায়৷ তার ইচ্ছে... আরও পড়ুন
উদ্ভট কিছু চিন্তাভাবনায় মস্তক ভরপুর। সব সময় মন আমার খুব ভালো সঙ্গি দেয়, কিন্তু যখন পড়ার টেবিলের দিকে চোখ যায় ঠিক তখনই মন আমাকে রেখেই পালায়। এমনই একটা মুহূর্ত এখন অতিবাহিত করছি। পড়ার টেবিলে বসে আছি কিন্তু পড়ায় মন বসছে... আরও পড়ুন
‘HOMONYM’ শব্দটির অর্থ জানো? তোমরা অনেকেই হয়তো পরিচিত । তবে যারা পরিচিত নও, তারা এইবার পরিচিত হতে পারো। হাতে দু’চার মিনিট সময় থাকলে চলো জেনে আসি Homonym সম্পর্কে। Homonym শব্দের অর্থ নানার্থক শব্দ বা ভিন্নার্থক শব্দ ।এক কথায় বলা যেতে পারে... আরও পড়ুন

আমরা সাহিত্য চর্চাও করবো না, লেখকও তৈরি করবো না, সম্পাদনাও করবো না, কেবল প্রকাশ করবো স্বপ্ন আর সৌহার্দ্য।

আপনার লেখা আজেই পাঠিয়ে দিন শুভ্র কাগজে। এই কাগজ প্রকাশ করবে আপনার প্রীতি।